দুর্গাপুর

বালির বেআইনি কারবার, নিরব প্রশাসন

দামোদর, ময়ুরাক্ষী, অজয় থেকে রোজ পাচার হয়ে যাচ্ছে কোটি কোটি টাকার বালি। যার জেরে মোটা টাকার রাজস্ব ক্ষতির মুখে পড়ছে রাজ্য সরকার। এই হচ্ছে অন্ডালে পূর্ব মদনপুর এলাকায় দামোদর নদের উপর সরকারের বৈধ বালি ঘাট। কিন্তু সেখানেই চলছে দিনের আলোয় অবৈধ কাজ। লাগামহীন ভাবে আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে তোলা হচ্ছে বালি। অভিযোগ প্রশাসনের একাংশের যোগসাজশের ফলেই এই অবৈধ বালির কারবার দিনের পর দিন রমরমিয়ে চলছে। অন্ডালের এই বালি ঘাটে সরকারী কোন নজরদারি নেই। আর তাই অবৈঞ্জানিক ভাবে জেসিবি সহ মেশিনের মাধ্যমে তোলা হচ্ছে বালি। নষ্ট হচ্ছে নদির নাব্যতা। আর সেই বালি ট্রাকে করে চলে যাচ্ছে জেলার বাইরে, ক্ষতির মুখে রাজ্য সরকার। দামোদর বক্ষেই বসানো যন্ত্র, সেখান থেকেই পাইপ চলে গিয়েছে দামোদরের জলে, এই ভাবেই তোলা হয় ট্রাক ট্রাক বালি। তৃণমূল নেতা কালোবরণ মন্ডল বলছেন, সরকারী ঘাট, কিন্তু বালি তোলা হচ্ছে বে আইনী ভাবে। প্রশাসনের আরও কড়া হওয়া দরকার, জীবনহানি ঘটতে পারে।

অন্যদিকে ব্লক আধিকারিক সুদীপ্ত বিশ্বাস বলছেন বিষয়টি তাঁর জানা নেই। বিএল আরও র কাছ থেকে খবর নিয়ে দেখছেন।

এনকয়েরি করতে বললেন আজকে, করি তারপর রিপোর্ট পাবো, এক প্রকার দায়সারা মনোভাব বি এল আরও অভিজিৎ মন্ডলের।

এভাবে আর কতদিন, কোথাও কোথাও প্রশাসনের ধরপাকর অভিযান চললেও ছবি টা বদলাচ্ছে কই, অনেকেই বলছেন সবটাই নাকি আই ওয়াশ। নাকি টেবিলের নিচে ভর্তি খামেই সব জেনেও না জানার ভান করছেন প্রশাসনের আধিকারিকেরা। কেন অবৈধ এই বালি কারবার বন্ধ করা যাচ্ছে না উঠছে প্রশ্ন, উত্তর কিন্তু অধরা। অন্ডালের এই অবৈধ বালি ঘটের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেয় অরশাসন সেই দিকে নজর থাকলো আমাদের। আর আমাদের এই অভিযান চলতে থাকবে। আগামী এপিসোডে দেখাবো আরও কিছু ছবি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button